মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:৪৬ পূর্বাহ্ন

অক্ষয় কুমারের বিরুদ্ধে চলছে বিক্ষোভ

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ১৯ জুন, ২০২১
  • ১২২ Time View

বলিউডে গেল কয়েক বছর ধরেই সবচেয়ে দামি তারকা তিনি। নানা রকম গল্প ও চরিত্রের সিনেমা দিয়ে তিনি যেমন দেখেছেন ব্যবসায়িক সাফল্যের মুখ তেমনি বাগিয়ে নিয়েছেন অনেক স্বীকৃতি ও প্রশংসাও। বলছি অক্ষয় কুমারের কথা।

করোনার মধ্যেও সিনেমার শুটিং করেছেন। করোনাতেও আক্রান্ত হয়েছেন। সেরে উঠে আবারও পুরোদমে কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।

এদিকে সম্প্রতি তিনি ‘পৃথ্বীরাজ’ ছবি নিয়ে বেশ ঝামেলায় আছেন। কয়েকদিন আগেই ছবিটির নাম বদলের দাবি তুলেছিল রাজনৈতিক দল কর্ণি সেনা। একই দাবি এবার তুলল অখিল ভারতীয় ক্ষত্রিয় মহাসভা।

কর্ণি সেনার বক্তব্য ছিল, মরাঠা সম্রাট পৃথ্বীরাজ চৌহানের পুরো নাম ব্যবহার করা হোক ছবির ক্ষেত্রে। নয়তো ছবির সেটে হামলা করবে, এমন হুমকিও দেওয়া হয়। শুক্রবার চণ্ডীগড়ে অখিল ভারতীয় ক্ষত্রিয় মহাসভা আর এক ধাপ এগিয়ে অক্ষয়ের কুশপুত্তলিকা দাহ করেছে।

তাদের দাবি, ছবির নাম রাখা হোক ‘হিন্দু সম্রাট পৃথ্বীরাজ চৌহান’। সেই দাবি আদায়ের জন্য ওই দল এ দিন রাস্তায় বিক্ষোভ দেখায়। অক্ষয়ের পাশাপাশি ছবির প্রযোজক আদিত্য চোপড়ার কুশপুতুলও পোড়ানো হয়।

পৌরাণিক বা ইতিহাস-নির্ভর ছবি নিয়ে কোনো রাজনৈতিক দলের এ জাতীয় আচরণ নতুন নয়। এর আগে কর্ণি সেনা ‘পদ্মাবত’-এর সময়ে ছবির সেটে গিয়ে ভাঙচুর করেছিল। ছবির পরিচালক সঞ্জয় লীলা ভানসালীকে শারীরিক নিগ্রহও করা হয়।

‘যোধা আকবর’ ছবির সময়েও রাজনৈতিক দলগুলো বিক্ষোভ দেখিয়েছিল। তবে রাজনৈতিক দলগুলোর এ ধরনের আচরণের বিরুদ্ধে এ পর্যন্ত বলিউড থেকে জোরালো প্রতিবাদ উঠে আসেনি। ‘পৃথ্বীরাজ’-এর শুটিং এখনও বাকি। নির্মাতারা রাজনৈতিক চাপে নাম বদল করেন কি না, সেটাই এখন দেখার।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 bhabisyatbangladesh
Developed by: A TO Z IT HOST
Tuhin