রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০৫:২৪ পূর্বাহ্ন

সাধারন মানুষকে বীমার গুরুত্ব বোঝাতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

Reporter Name
  • আপডেট : রবিবার, ১ মার্চ, ২০২০
  • ৭১ পড়েছেন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমাদের দেশে বীমা নিয়ে মানুষের মধ্যে সচেতনতা কম। মানুষের মধ্যে বীমার বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে। বীমার গুরুত্ব বোঝাতে হবে। তিনি বলেন, বীমার প্রতি মানুষের আস্থা বাড়াতে হবে। বীমার সকল হিসাব-নিকাশ অটোমেশন পদ্ধতিতে আনলে মানুষের আস্থা বাড়বে। বীমা করলে মানুষ যে সুবিধাগুলো পাবে তা প্রচার করতে হবে। রবিবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বীমা দিবস-২০২০ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, আমার বাবা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ইনস্যুরেন্স কোম্পানিতে চাকরি করতেন। সে হিসেবে আমরা বীমা পরিবারের সদস্য। আমার জন্যও যেন বীমা কোম্পানিতে একটি চাকরি থাকে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুকে আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলায় জড়িয়ে কারাবন্দি করা হয়। তিনি মুক্তি পেলে তাকে ইনস্যুরেন্স কোম্পানি থেকে তাকে চাকরির প্রস্তাব দেওয়া হয়। রাজনীতির পাশাপাশি তিনি জীবন-জীবিকার জন্য আলফা ইনস্যুরেন্স কোম্পানিতে ইনস্যুরেন্স কন্ট্রোলার হিসেবে চাকরিতে যোগদান করেন। ইনস্যুরেন্স কোম্পানি প্রচারণা চালাতে তাকে সারাদেশ ঘুরতে হয়। সে সুবাদে তিনি আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ করেছিলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, বঙ্গবন্ধু বীমার গুরুত্ব বুঝতে পেরেছিলেন বলেই তিনি ১৯৭৩ সালে আইন প্রণয়ন করেন। একটি যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশকে গড়ে তোলার দায়িত্ব নিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। তখন কোনো রিজার্ভ মানি ছিলো না। যুদ্ধের বছর কোনো উৎপাদন হয়নি। ধ্বংসস্তূপের ওপর দাঁড়িয়ে একটি রাষ্ট্র গঠন, কাঠামো প্রণয়ন ও সংবিধান দিয়ে গেছেন বঙ্গবন্ধু।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা সরকার গঠনের পর বীমা এগিয়ে নিতে অনেক কিছু করেছি। বীমা আইন-২০১০ প্রণয়নসহ দুটি আইন করে দিয়েছি। জাতীয় বীমা নীতি-২০১৪ প্রণয়ন করেছি।

শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ