যৌন হয়রানির প্রতিবাদ জানাতে ২০১৮ সালে ‘হ্যাশট্যাগ মিটু’ আন্দোলন শুরু হয়েছিল। বলিউডের নায়িকারা অনেক বড় বড় তারকার মুখোশ খুলে দিয়েছেন এই আন্দোলনের মাধ্যমে। এবার সেই নায়িকাদের মতোই প্রতিবাদী নারী হয়ে হাজির হচ্ছেন বাংলাদেশের ছোট পর্দায় জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা।

‘#মিটু’ নামের নাটকটিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিশা। নাটকটি নির্মাণ করেছেন সাজ্জাদ সুমন। সম্প্রতি এর শুটিং শেষ হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে সাজ্জাদ সুমন বলেন, ‘আমাদের দেশেও নারীরা নানা ক্ষেত্রে যৌন হয়রানির শিকার হচ্ছে। ধর্ষণের মতো ঘটনা ঘটে যাচ্ছে একের পর এক। যৌন হয়রানির প্রতিরোধ করতেই হবে আমাদের, দেশে ধর্ষণ বন্ধ হবে। সেই ভাবনা থেকেই নাটকটি নির্মাণ করেছি

আমাদের নাটকটিও সেই একধরনের প্রতিবাদ। গল্পে দর্শক দেখতে পাবেন তিশা যৌন হয়রানির শিকার হয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে #মিটু দিয়ে অভিযোগ তুলে ধরেন। এরপর যৌন হয়রানিকারীদের বিরুদ্ধে সবাই সোচ্চার হয়।’

নির্মাতা জানান, ১৯৫২ এন্টারটেইনমেন্টের ব্যানারে নির্মিত নাটকটি রচনা করেছেন মেজবাহ উদ্দিন সুমন। তিশা ছাড়াও এতে অভিনয় করেছেন শহিদুজ্জামান সেলিম, লুৎফুর রহমান জর্জ, সুজাত শিমুল, টিনু করিম প্রমুখ। আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে চ্যানেল আইতে নাটকটি প্রচার হবে।
Teachers hired at roxbury prep are warned https://essay4today.com/ that the job requires at least 60 hours per week.