অস্ট্রেলিয়ায় স্মরণকালের সব চেয়ে ভয়াবহ দাবানল নিয়ন্ত্রণে এনেছেন বলে জানিয়েছেন নিউ সাউথ ওয়েলসের দমকলকর্মীরা। সোমবার এই তথ্য নিশ্চিত করেছে দেশটির দমকলকর্মীরা। ইন্ডিয়ান গণমাধ্যম ইয়ন টিভির প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

সিডনির উত্তরপশ্চিমাঞ্চলে এ দাবানল তিন মাস ধরে জ¦লছিল। নিউ সাউথ ওয়েলস রুরাল ফায়ার সার্ভিস কমিশনার শেন ফিৎসিমনস বলেন, এখনও কিছু এলাকা জ¦লছে। তবে বেশিরভাগ আগুন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আগামি সপ্তাহে ৫০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হতে পারে। দীর্ঘদিন ধরে ওই এলাকা খরায় পুড়ছিল। সেখানে লোকজন ফিরতে শুরু করেছে। ফায়ার সার্ভিস কমিশন বলেছে, আবহওয়ার পূর্বাভাস সত্য হলে সেটা হবে আমাদের ক্রিসমাস, জন্মদিন, বাগদান, বিবাহ বার্ষিকী, বিয়ের অনুষ্ঠান ও স্নাতক ডিগ্রি লাভের মতো আনন্দ।

জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাবে দাবানল ভয়াবহ রূপ নেয়। বিশ্ব সম্প্রদায় প্রাণী রক্ষায় সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। এ পর্যন্ত আগুনে ২৬ জন মানুষ নিহত হয়েছেন। পশু মারা গেছে একশ’ কোটি। অগণিত গাছ ও গুল্ম পুড়ে গেছে।

পরিবেশ মন্ত্রী সুশান লে সতর্ক করে বলেছেন, বিলুপ্তির মুখে থাকা কোয়ালার মতো প্রাণী হারিয়ে যেতে পারে। এ সপ্তাহের শেষ দিকে সিডনি একটি চ্যারিটি শো আয়োজন করছে। দমকল বাহিনী, রেডক্রস ও প্রাণী কল্যাণ সংগঠনগুলোকে আর্থিক সহায়তা দেয়াই এর লক্ষ্য।

সমীক্ষায় দেখা গেছে, দাবানল নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমে প্রধানমন্ত্রীর ওপর ৫৯ শতাংশ ভোটার অসন্তুষ্ট। সন্তুষ্ট ৩৭ শতাংশ।