সপ্তাহজুড়ে চলমান বিক্ষোভে ভারতের বিভিন্ন জায়গায় কমপক্ষে ২০ জন নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে কাতার ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

খবরে বলা হয়েছে, আটটি রাজ্যে সপ্তাহব্যাপী চলমান বিক্ষোভ সহিংসতার প্রেক্ষিতে শনিবার মন্ত্রিসভার জরুরি বৈঠক ডেকেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

রয়টার্সকে এক সরকারি কর্মকর্তা নিশ্চিত করেছেন যে, জরুরি বৈঠকের জন্য সব মন্ত্রীকে তলব করেছেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। নাগরিক সংশোধনী আইনের বিরোধিতা করে দেশজুড়ে চলমান বিক্ষোভ ও সহিংসতার বিষয়ে আলোচনা করতেই এ বৈঠক ডেকেছেন তিনি।

উত্তরপ্রদেশ পুলিশের মুখপাত্র শিরিস চন্দ্র জানিয়েছেন, শুক্রবার সহিংসতার সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে আট বছর বয়সী এক শিশু এবং চার বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছে।

দিল্লি, উত্তরপ্রদেশ, আসাম, পশ্চিমবঙ্গে বিক্ষোভ করছে হাজার হাজার মানুষ। দিল্লিতে কারফিউ জারি থাকলেও সেখানে বিক্ষোভের প্রস্তুতি নিচ্ছে বিক্ষোভকারীরা।

উত্তরপ্রদেশের অনেক মানবাধিকার কর্মী জানিয়েছেন যে, পুলিশ তাদের বাড়ি এবং কার্যালয়ে অভিযান চালাচ্ছে। নতুন করে সমাবেশ বা বিক্ষোভে যেন তারা অংশ না নেন সেজন্য তাদের ওপর চাপ প্রয়োগ করা হচ্ছে।

জানা যায়, শুধু শুক্রবারের বিক্ষোভে ভারতের উত্তর প্রদেশে ৯ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে অনেকে। এছাড়া এদিন রাজ্যজুড়ে ৩ হাজার ব্যক্তিকে আটক করেছে দেশটির পুলিশ। এর আগে বৃহস্পতিবার পুলিশের গুলিতে দেশটির ব্যাঙ্গালুরুতে দুইজন এবং লক্ষ্ণৌতে একজন বিক্ষোভকারী নিহত হন।