রোহিঙ্গা গণহত্যার দায়ে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে গাম্বিয়ার করা মামলায় সমর্থন জানিয়েছে কানাডা। কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড এক বিবৃতিতে এ সমর্থনের কথা জানিয়েছেন। দেশটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, অপরাধীদের বিচারে সহায়তা করবে কানাডা।

এর আগে, গণহত্যার অভিযোগে এনে গত সোমবার জাতিসংঘের সর্বোচ্চ আদালত নেদারল্যান্ডসের হেগের আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে (আইসিজে) মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মামলা করে গাম্বিয়া। মুসলিমপ্রধান দেশগুলোর সংগঠন ওআইসির (অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কোঅপারেশন) পক্ষ থেকে মামলাটি দায়ের করে পশ্চিম আফ্রিকার এই দেশটি।

কানাডার সংবাদ মাধ্যম দ্য কানাডিয়ান প্রেস বুধবার জানায়, এক বিবৃতিতে কানাডীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড বলেছেন, মিয়ানমার সরকারের বিরুদ্ধে গাম্বিয়ার দায়ের করা আন্তর্জাতিক গণহত্যা কনভেনশন লঙ্ঘনের অভিযোগের বিষয়টিতে কানাডার সমর্থন রয়েছে? এ বিষয়ে কীভাবে পূর্ণ সহায়তা প্রদান করা যায়, সেই পথ খুঁজছে কানাডা।
গাম্বিয়ার উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে কানাডীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, বিষয়টির আইনি সমাধানের জন্য সমমনা দেশগুলোকে নিয়ে কাজ করবে কানাডা। রোহিঙ্গা নির্যাতনের সঙ্গে জড়িত অপরাধীদের বিচারের আওতায় আনতে এবং মিয়ানমারে দীর্ঘ মেয়াদে শান্তি ও সম্প্রীতি ফিরিয়ে আনতেও কাজ করবে।