বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদের হত্যার ঘটনায় ভিডিও ফুটেজ পর্যালোচনা করে ১৭ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। সোমবার (৭ অক্টোবর) চকবাজার থানা পুলিশ এই তথ্য জানিয়েছে।

এই ঘটনায় বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকসহ ৯ জনকে আটক করা হয়েছে। তারা হলেন, বুয়েট শাখা সাধারণ সম্পাদক মেহেদি হাসান রাসেল, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মুহতাসিম ফুয়াদ, তথ্য ও গবেষণা অনিক সরকার, ক্রীড়া সম্পাদক মেফতায়ুল ইসলাম জিয়ন, গ্রন্থনা ও প্রকাশনা ইশতিয়াক মুন্না ইফতি মোশাররফ, সমাজসেবা উপ সম্পাদক তানভিরুল আবেদিন ইথান, মেকানিক্যাল ৩য় বর্ষের ছাত্র মুনাতাসির আল জেমি।

গতকাল রোববার দিবাগত রাত ৩টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শের-ই-বাংলা হলের একতলা থেকে দোতলায় ওঠার সিঁড়ির মাঝ থেকে আবরারের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। আবরার ফাহাদ বুয়েটের তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক প্রকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের (১৭তম ব্যাচ) শিক্ষার্থী ছিলেন। তার বাড়ি কুষ্টিয়া শহরে।