মালয়েশিয়ায় গ্রেফতার বাংলাদেশি তরুণ রায়হান কবির আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম আল জাজিরার করা একটি প্রতিবেদনে বক্তব্যের জন্য মালয়েশিয়ার সরকারের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন।

স্থানীয় সময় বুধবার (২৯ জুলাই) রায়হান কবিরের সঙ্গে দেখা করর পর এ তথ্য জানিয়েছেন রায়হানের আইনজীবী সিআর সেলভা।

তিনি জানান, মালয়েশিয়ার অভিবাসন বিভাগের সদর দফতরে তার সঙ্গে এক ঘণ্টার বৈঠকের সময় তিনি ক্ষমা চান।

এসময় রায়হান বলেন, করোনাকালীন সময়ে প্রবাসীদের প্রতি যে আচরণ করেছে অভিবাসন বিভাগ সেটিই তিনি প্রতিবেদনে বলেছেন। তবে তিনি মালয়েশিয়ানদের সম্মান ক্ষুণ্ণ করতে চাননি।

আইনজীবী আরও বলেন, তারা তাদের পরবর্তী পদক্ষেপের বিষয়ে অফিসিয়ালি ইমিগ্রেশন বিভাগকে লিখিতভাবে চিঠি পাঠাবেন এবং রায়হান কবিরকে কখন নির্বাসন দেওয়া হবে তা জানতে চাইবেন।

উল্লেখ্য, চলতি মাসের ৩ তারিখ সংবাদমাধ্যমটির অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে ‘লকডআপ ইন মালয়েশিয়ান লকডাউন-১০১ ইস্ট’ শীর্ষক অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে করোনাভাইরাস মহামারীতে মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের সঙ্গে সরকারের আচরণ নিয়ে কথা বলেন রায়হান কবির।

মালয়েশিয়া সরকার ওই প্রতিবেদনের অভিযোগগুলো অস্বীকার করে এবং রায়হানের ওয়ার্ক পারমিট বাতিল করে। পরে শুক্রবার সন্ধ্যায় তাকে কুয়ালালামপুরের জালান পাহাং স্তাপার একটি কন্ডোমিনিয়াম থেকে গ্রেফতার করে ১৪ দিনের রিমান্ডে নেয় দেশটির পুলিশ।