ক’রোনা মো’কাবিলায় প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য উপকরণ কেনায় দু’র্নীতির অ’ভিযোগে গ্রে’ফতার হয়েছেন জিম্বাবুয়ের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ওবাদিয়াহ মোয়ো। দেশটির দু’র্নীতি দ’মন কমিশনের

(জেডিএসিসি) মুখপাত্র জন মাকা’মুরে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমকে বি’ষয়টি নিশ্চিত করেছেন।জানা গেছে, মোয়োকে হারারের রোডেসভাইল পু’লিশ স্টেশনে রাখা হয়েছে।

শনিবার আ’দালতে হাজির করা হবে তাকে। সিজিটিএন আফ্রিকা জানিয়েছে, ড্রাক্স ইন্টারন্যাশনাল নামে একটি প্রতিষ্ঠানকে

অনিয়মের মাধ্যমে ক’রোনা মো’কাবিলায় প্রয়োজনীয় জরুরি ও’ষুধ ও ব্যক্তিগত সুরক্ষা উপকরণ (পিপিই) সরবরাহে ৪২ মিলিয়ন ডলারের কাজ পাইয়ে দেয়ার অভিযোগ

উঠেছে জিম্বাবুইয়ান স্বাস্থ্যমন্ত্রীর বি’রুদ্ধে। তবে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ অর্থের পরিমাণ ৬০ মিলিয়ন ডলার বলে জানিয়েছে।

সিজিটিএন বলছে, ড্রাক্স ইন্টারন্যাশনাল কোনও ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি নয়, বরং সাধারণ পরামর্শক প্রতিষ্ঠান জানা সত্ত্বেও স্বাস্থ্য উপকরণ সরবরাহের টেন্ডার তাদের

পাইয়ে দিয়েছিলেন মোয়ো। জিম্বাবুয়ের ক্রয় নিবন্ধ’ন কর্তৃপক্ষকে না জানিয়েই তিনি এ চুক্তি স্বাক্ষর করেছিলেন বলে জানিয়েছে আল জাজিরা। রয়টার্সের ত’থ্যমতে, এ দু’র্নীতির খবর প্রকাশ হতেই গত সপ্তাহে ওই চুক্তি স্থগিত করেন

জিম্বাবুয়ের প্রে’সিডেন্ট এমারসন মানগাওয়া। এছাড়া, গ্রে’ফতার করা হয় ড্রাক্স ইন্টারন্যাশনালের স্থানীয় প্রতিনিধিকেও।শুক্রবার মানগাওয়া স’রকারের দ্বিতীয় মন্ত্রী

হিসেবে দুর্নীদির দায়ে গ্রে’ফতার হলেন ওবাদিয়াহ মোয়ো। এর আগে, সাবেক পর্যটন মন্ত্রীকে দু’র্নীতির অভিযোগে গ্রে’ফতার করা হয়েছিল।আরও পড়ুন…বাংলাদেশ জাতীয়

ক্রিকেট দলে দীর্ঘদিন ধরে খেলছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা, সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম এবং মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। ক্রিকেট বিশ্বে এই পাঁচজনকে

পঞ্চপান্ডব নামেই চেনে সবাই। তবে ইতিমধ্যেই টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট কে বিদায় বলে দিয়েছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। এছাড়াও যেকোনো মুহূর্তেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিতে পারেন তিনি।

তাই বাংলাদেশের পরবর্তী পাঁচ পঞ্চপান্ডব কে হবে এই প্রশ্ন সবার মুখেই। সেই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি দলের বর্তমান অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। দ্য ডেইলি স্টারের ফেসবুক পেজে লাইভে আসেন বাংলাদেশে টি-টোয়েন্টি দলের