নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলার সুন্দলপুর ইউনিয়নের দশম শ্রেণির ছাত্রীকে হাত-মুখ বেঁধে ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত আসামি আব্দুর রহিম রবিনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার (২৯ জুন) দিবাগত রাত ১০টার দিকে জেলা সদর উপজেলা থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত আব্দুর রহিম রবিন সুন্দলপুর ৬নং ওয়ার্ড বারিপুকুরপাড় এলাকার সামছুজামান মানিকের ছেলে।

পুলিশ জানায়, সোমবার সন্ধ্যায় ঘরে একা পেয়ে দশম শ্রেণির ওই ছাত্রীর হাত মুখ বেঁধে ধর্ষণ করে রবিন। এসময় ছাত্রীদের ঘরের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় পার্শ্ববর্তী এক গৃহবধূ ঘর থেকে ধস্তাধস্তি ও গোঙ্গানির শব্দ শুনে ঘরে ঢুকলে ধর্ষক রবিন পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় রাতে ভিকটিমের মা বাদী হয়ে রবিনকে আসামি করে কবিরহাট থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। কবিরহাট থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ফজলুল কাদের পাটোয়ারী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, মামলার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে অশ্বদিয়া ইউনিয়নের নীমতলা এলাকায় অভিযান চালিয়ে ধর্ষণ মামলার আসামি রবিনকে গ্রেফতার করা হয়।

ঘটনার পর সে ওই এলাকায় গিয়ে আত্মগোপনে ছিল। বুধবার (১ জুলাই) সকালে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হবে। এদিকে মঙ্গলবার দুপুরে ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে বলেও জানান এ কর্মকর্তা।