মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এক মন্তব্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে চীনের ‘পাইপ অরগান’ (এক ধরনের বাদ্যযন্ত্র) বলে বর্ণনা করেছেন। হোয়াইট হাউসের ওভাল অফিসে স্থানীয় সময় বুধবার (২৯ এপ্রিল) সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন তিনি। ট্রাম্প জানান, খুব শিগগিরই যুক্তরাষ্ট্র বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিরুদ্ধে একটি সুপারিশ পেশ করতে যাচ্ছে। এছাড়া চীনকে নিয়েও যে যুক্তরাষ্ট্র ব্যবস্থা নেবে, সে বিষয়ে আবারও হুশিয়ারি দিলেন ট্রাম্প। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সমালোচনা করে যুক্তরাষ্ট্র দাবি করেছে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনা পরিস্থিতি নিয়ে তাদের বিভ্রান্ত করেছে। দেশটির প্রেসিডেন্ট বলেন, আমরা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে নিয়ে মোটেও সন্তুষ্ট নই। খবর এনডিটিভি।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনা নিয়ে কিছুই জানে না মন্তব্য করে ট্রাম্প বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা যা জানে, করোনা সম্পর্কে তার চেয়ে বেশি জানা উচিত ছিল সংস্থাটির। ট্রাম্প সংস্থাটিকে চীনের চেয়ে বেশি অর্থ সহায়তা দেয়ার বিষয়টিও সামনে আনেন। কিন্তু এরপরও সংস্থাটি কেন করোনা ভাইরাসের বিষয়ে তদন্ত করতে আরও আগে চীনে গেল না, সে প্রশ্ন তোলেন ট্রাম্প।

চীনকে নিশানা করে ট্রাম্প প্রশ্ন তোলেন, কেন চীন করোনার আবহে নিজের দেশে বিদেশি উড়োজাহাজ আসতে দিল না? অথচ নিজের দেশ থেকে বিদেশে ফ্লাইট যাওয়ার অনুমতি দিল। তিনি বলেন, চীনের উহান শহর থেকে ইতালিসহ সারা বিশ্বে ফ্লাইট গেল, কিন্তু চীনে কোনো ফ্লাইট যেতে দেয়া হলো না। করোনা ভাইরাসকে শুরুর দিকে গুরুত্ব না দেয়া মার্কিন প্রেসিডেন্টের এ ইস্যুতে চীনকে দোষারুপ নতুন নয়। এসব দোষারুপের জবাবে বেইজিংয়ের জবাব, ট্রাম্প নিজের ব্যর্থতা আড়াল করতেই অন্যকে দোষারুপ করছে।