করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বজুড়ে চলছে লকডাউন। প্রায় প্রতিটি দেশই সীমান্ত বন্ধ করে দিয়েছে। মানুষ গৃহবন্দি হয়ে পড়ায় এর নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে খাদ্য উৎপাদনে। আর সে কারণেই তৈরি হতে পারে খাদ্য সংকট। জাতিসংঘ আশঙ্কা প্রকাশ করছে যে, বিশ্বজুড়ে খাদ্য সংকটের কারণে দুর্ভিক্ষ দেখা দিতে পারে। খবর সিএনএনের।

করোনার প্রভাব রুখতে বিশ্বজুড়ে যেভাবে লকডাউন শুরু হয়েছে এর জেরেই অনভিপ্রেত খাদ্য সংকট তৈরি হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষিবিষয়ক সংস্থা এফএও।

আন্তর্জাতিক এ সংস্থাটি বলছে, এখন খাবারের অভাব বোঝা না গেলেও লকডাউনের পর খাদ্যের প্রকট অভাব শুরু হবে। ইতোমধ্যেই বিশ্বব্যপী প্রায় ৮০ কোটি মানুষ খাদ্য সংকটে ভুগছে।

জাতিসংঘের আশঙ্কা, লকডাউনের জেরে বিশ্বজুড়ে খাদ্য সরবরাহ বিঘ্নিত হওয়ায় যেসব দেশে প্রয়োজনীয় খাদ্য উৎপাদন হয় না, যাদের খাদ্যের জন্য অন্য দেশের ওপর নির্ভর করতে হয়, সেসব দেশ চরম সমস্যায় পড়তে পারে। দেখা দিতে পারে দুর্ভিক্ষ।

এই সংকট থেকে রক্ষা পেতে দ্রুত বিশ্বজুড়ে খাদ্য পরিবহনের ব্যবস্থা চালু করতে তাগিদ দিয়েছে এফএও।