করোনা পরিস্থিতিতে নিম্ন আয়ের ৫০ হাজার হতদরিদ্র পরিবারের জন্য এক মাসের খাবারের ব্যবস্থা করার ঘোষণা দিয়ে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন। গত শুক্রবার রাজধানীর গুলিস্তান এলাকায় জীবাণুনাশক ছিটানোর গাড়ি পরিদর্শনে এসে তিনি এ ঘোষণা দেন। তিনি উপস্থিত শতাধিক হতদরিদ্র রিকশাচালক ও খেটে খাওয়া মানুষের মধ্যে নগদ অর্থ বিতরণ করেন।

এ বিষয়ে সাঈদ খোকন বলেন, আমি আমার সম্মানিত নগরবাসীকে আহ্বান জানাব তারা যেন বাড়ি থেকে বের না হন। পাশাপাশি দেশের বিত্তবান সবাইকে আহ্বান জানাব তারা যেন এই দুর্দিনে খেটে খাওয়া মানুষের পাশে দাঁড়ান। কোনো নাগরিক যদি বাসায় থেকে আমাদের হটলাইনে ফোন করে বলেন- তিনি খাবার সংকটে রয়েছেন, তাহলে আমাদের জানান- আমরা তার বাসায় খাবার পৌঁছে দেব। এ জন্য আমাদের নির্বাচিত কাউন্সিলর ও আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে একটি টিম গঠন করা হয়েছে। তারা এরই মধ্যে কাজ শুরু করেছেন। আমার মেয়াদ থাকুক আর নাই থাকুক আমি সবসময় নগরবাসীর পাশে আছি এবং থাকব। আপনারা আমাকে সবসময় পাশে পাবেন।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে কর্মহীন নগরীর ছিন্নমূল মানুষ, হতদরিদ্র, খেটে খাওয়া ও শ্রমজীবী মানুষের মাঝে সাঈদ খোকনের নির্দেশে নগদ অর্থ বিতরণ করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন। আজিমপুর, ধানমন্ডি, কাঁঠালবাগান, বায়তুল মোকাররমসহ বিভিন্ন এলাকার ফুটপাতে বসবাসকারী এসব ছিন্নমূল অসহায় পথচারীর হাতে নগদ অর্থ তুলে দেয়া হয়।

গত শনিবার ৫০ হাজার ছিন্নমূল মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ কর্মসূচি শুরু করেন মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন। এদিন বিকেলে পুরান ঢাকার বাহাদুরশাহ পার্কে মাসব্যাপী এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন তিনি।

এ সময় সাঈদ খোকন বলেন, আমাদের নগরবাসীর অনেকেই দিন এনে দিন খায়। তাদের অনেকেই দিনমজুর। এখানে অনেক মানুষ রয়েছেন যারা নিম্নবিত্ত। করোনাভাইরাসের কারণে আজ তারা কর্মহীন হয়ে পড়েছেন। আজ কাজ না থাকার কারণে তাদের নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী জোগাড় করা দুরূহ হয়ে পড়েছে। এ অবস্থায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনপ্রতিনিধিদের হতদরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য নির্দেশ দিয়েছেন।

এদিকে কর্মসূচির দ্বিতীয় দিন রোববার বিকেলে ঢাকা দক্ষিণ সিটির নগর ভবনের সামনে থেকে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ শুরু করেন সাঈদ খোকন।

এ সময় তিনি বলেন, আমরা ৫০ হাজার পরিবারের কাছে এক মাসের নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী বিতরণের উদ্যোগ নিয়েছি। তারই অংশ হিসেবে আমাদের কার্যক্রম চলমান। আমাদের ওয়ার্ড পর্যায় থেকে তালিকা প্রণয়ন করা হয়েছে। আজ রিকশাচালকসহ অন্যদের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে। যেন তাদের কর্মহীন অবস্থায় পড়ে খাদ্যসংকটে থাকতে না হয়।

সাঈদ খোকন আরও বলেন, আমি আপনাদের নির্বাচিত মেয়র হিসেবে অনুরোধ করতে চাই, যারা এই শহরের বিত্তবান রয়েছেন, স্বচ্ছল রয়েছেন, যারা মানুষকে ভালোবাসেন তাদেরকেও নিজ নিজ অবস্থান থেকে এই দুঃখী অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য আকুল আবেদন জানাচ্ছি। আমরা সাবই মিলে এই দুর্যোগ মোকাবিলা করবো ইনশাআল্লাহ।